শনিবার, ২৮ নভেম্বর ২০২০, ০৪:৩৯ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
কুষ্টিয়া সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আতাউর রহমান আতা’র মা সাহারা বেগমের দাফন সম্পন্ন তোমার বাড়ি কুষ্টিয়া! কুষ্টিয়ায় বাংলাদেশ হ্যান্ডবল ফেডারেশনের উদ্যোগে সমাপনী অনুষ্ঠান ও সনদ বিতরন দৌলতপুরে সড়ক দূর্ঘটনায় মোটরসাইকেল আরোহী নিহত ভিজিডির চাল আত্মসাত, রিফাইতপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান জামিরুল ইসলাম বাবু কারাগারে ধান কুড়ানোয় মেতেছে কুষ্টিয়ার গ্রামীন শিশুরা কুষ্টিয়ায় শিশু ধর্ষণ মামলায় কিশোর গ্রেফতার মাথাভাঙ্গা নদীর তীর থেকে দৌলতপুরের পিপুলবাড়িয়ার নিখোঁজ কলেজ ছাত্রীর কঙ্কাল উদ্ধার কাউন্সিলর থেকে উপজেলা চেয়ারম্যান হলেন নিলুফা ইয়াসমিন স্কুল শিক্ষার্থীকে মারধরের ভিডিও ভাইরাল, গ্রেফতার ৪কিশোরের জামিন 

এসএম তানভীর আরাফাতের কুষ্টিয়া জেলার পুলিশ সুপারের দায়িত্বভার গ্রহণের আজ দ্বিতীয় বার্ষিকী

মো.শহিদুল্লাহ: / ২৬২ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : মঙ্গলবার, ১৫ সেপ্টেম্বর, ২০২০, ১২:১৩ অপরাহ্ন
কুষ্টিয়া জেলার পুলিশ সুপারে এসএম তানভীর আরাফাত পিপিএম (বার)




কুষ্টিয়া জেলার সুযোগ্য পুলিশ সুপার জনাব এসএম তানভীর আরাফাত পিপিএম (বার) মহোদয়ের কুষ্টিয়া জেলা পুলিশ সুপারের দায়িত্বভার গ্রহণের আজ দ্বিবর্ষ পূর্তি দিন৷ আজ সকালে কুষ্টিয়া জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন ও অপরাধ) জনাব মোহাম্মদ মুস্তাফিজুর রহমানের তদারকিতে কুষ্টিয়া জেলার সুযোগ্য পুলিশ সুপার জনাব এস এম তানভীর আরাফাতকে পিপিএম (বার ) মহোদয়কে প্রাণঢালা ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়৷

 

 

 

বিদ্যাপীঠের সবচেয়ে মেধাবী ,বিদ্বান, জ্ঞানী, দূরদর্শী,মহানুভব এবং জনতার সেবায় নিবেদিত প্রাণ মহামানব এস এম তানভীর আরাফাত পিপিএম (বার )মহোদয়কে পনেরোই সেপ্টেম্বর ২০১৮ তারিখ কুষ্টিয়া জেলার পুলিশ সুপার হিসেবে আমাদের মাঝে আমরা পেয়ে হয়েছিলাম ধন্য, আমরা হয়েছিলাম কৃতার্থ,উদ্দীপ্ত, উল্লসিত ও আশান্বিত ৷ পুলিশ সুপার এস এম তানভীর আরাফাত পি পি এম (বার) মহোদয় ১৯৭৭ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারী মাতা অসীমা মান্নানের কোলজুড়ে খুলনা শহরে জন্মগ্রহন করেন ৷ তিনি বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সর্বোচ্চ ডিগ্রী অর্জন করেন ৷ বিসিএস পরীক্ষার মাধ্যমে ২/০৭/২০০৫ তারিখ সহকারি পুলিশ সুপার হিসেবে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে যোগদান করেন তিনি৷ তিনি১৪/১২/২০১৭ তারিখ পুলিশ সুপার পদে পদোন্নতি লাভ করেন৷

 

 

পুলিশ বাহিনীতে যোগদানের পর এই কর্মবীর সন্ত্রাসী ও জঙ্গিবিরোধী অভিযানে ইতিহাস তৈরি করেন।

 

তিনি ১৫/০৯/২০১৮ তারিখ কুষ্টিয়ার পুলিশ সুপার হিসেবে দায়িত্বভার গ্রহণ করেন৷

তার আগে তিনি ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশে উপ পুলিশ কমিশনার ( ¯ট্যান্ডার্ড এন্ড ইন্টারন্যাশনাল ইনভেস্টিগেশন ডিভিশন) হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

 

 

কুষ্টিয়া জেলায় তাঁর যোগদানের পর পাল্টে যায় কুষ্টিয়া পুলিশের চিত্র। পুলিশ শাসক নয়, শোষক নয়; পুলিশ জনগণের সেবক-এই মন্ত্রে উজ্জীবিত হয় পুরো কুষ্টিয়া জেলা পুলিশের সকল সদস্য। এ কারণে হ্রাস পায় পুলিশ কর্তৃক মানুষের হয়রানি। শক্তি বা বল প্রয়োগে নয় বরং ভালোবাসার বার্তা দিয়ে সমাজ থেকে অপরাধের অন্ধকার দূরে করে দৃষ্টান্ত স্থাপনে বিশ্বাস করেন এই পুলিশ কর্মকর্তা।

 

 

 

জেলায় যোগদানের পর মাদক নিয়ন্ত্রণ, জঙ্গি দমন আর জনতার সেবায় তিনি ছিলেন সবার অগ্রদূত ৷ আমজনতাকে তিনি নিজের অত্যন্ত আপন করে নিয়েছিলেন ৷ পুলিশ যে আম জনতার শত্রু নয় বন্ধু সে কথার বীজ মানুষের মনে বপিত হয়েছিল৷ অপরাধ নিয়ন্ত্রণে তিনি ছিলেন অত্যন্ত চৌকস এবং দক্ষ৷ শুধু তাঁর ভূমিকার কারণেই তিনি রাষ্ট্রীয় সর্বোচ্চ সম্মান রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদক অর্জন করেন ৷

 

২০১৮ সালে বাংলাদেশ পুলিশ বাহিনীতে অসীম সাহসিকতা, অপরাধ নিয়ন্ত্রণে দক্ষতা, কর্তব্যনিষ্ঠা, সততা ও শৃঙ্খলামূলক আচরণের মাধ্যমে প্রশংসনীয় অবদান রাখার জন্য রাষ্ট্রপতি পুলিশ পদক (পি পি এম-সেবা) অর্জন করেন ৷

পুলিশ সপ্তাহ ২০১৮ রাজারবাগ পুলিশ লাইন্স মাঠে

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী বিশকোটি বাঙ্গালীর নয়নের মনি সম্মাননিয় জনাব শেখ হাসিনা পিপিএম সেবার সম্মানের পদকটি কুষ্টিয়া জেলার সুযোগ্য পুলিশ সুপার জনাব এস এম তানভীর আরাফাত পিপিএম (বার ) মহোদয়কে নিজ হাতে পরিয়ে দেন৷

 

 

 

 

সেবাকে জনতার দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়ার জন্য তিনি জেলা সদরে স্থাপন করেন নারীদের সেবাদানকারী প্রত্যয়ী কার্যালয় —যেখানে সুযোগ বঞ্চিত অসহায় নির্যাতিত নারীরা তাদের অভিযোগের সঠিক প্রতিকার পায় ৷ জনতা যাতে করে কখনো হয়রানির শিকার না হয় সেজন্য জেলার সকল অফিসার ইনচার্জকে তাৎক্ষণিকভাবে জনসেবাকে নিশ্চিত করবার জন্য তিনি নির্দেশ প্রদান করেন ৷ ফলেএলাকায় চুরি ডাকাতি ছিনতাই এক প্রকার শূন্যের কোটায় নেমে আসে ৷ তিনি কুষ্টিয়া পুলিশ লাইন্সকে রুপদেন অনিন্দ্যসুন্দর একটি পুলিশ লাইনস এ ৷ তার চারিদিকে সৌন্দর্যের বিচ্ছুরণ ঘটে ৷ কিছুদিন পূর্বে পুলিশ লাইনের যে সমস্ত জায়গায় বন জঙ্গল ছিল সে জঙ্গল গুলি পরিষ্কার করে পরিপাটি রূপে সাজানো হয় তার নির্দেশে ৷ পুলিশ সুপার মহোদয়ের নতুন অফিস ভবন, পুলিশ অস্ত্রাগার নির্মাণ শেষ হয়েছে নতুন পুলিশ হাসপাতাল নতুন ফায়ারিং বাট নির্মাণ ইতোমধ্যে শেষ পর্যায়ে পৌঁছেছে ৷ নারী ব্যারাকের কাজ অলরেডি সমাপ্ত হয়েছে ৷এগুলি সবই সম্ভব হয়েছে পুলিশ সুপার এসএম তানভীর আরাফাত পিপিএম-এর যোগ্য নেতৃত্ব এবং তার সৃজনশীল প্রতিভার কারণে ৷কুষ্টিয়া জেলাবাসী এস এম তানভীর আরাফত পিপিএমকে পুলিশ সুপার হিসেবে পেয়ে যার পর নাই খুশি থেকেছেন ৷ সমস্ত সৃজনশীল কাজে কুষ্টিয়াবাসীও সব সময় পুলিশ সুপার মহোদয় এর সাথে এক কাতারে শামিল হয়েছে৷

 

 

 

সবার মনটা খারাপ হয়ে যায় যখন টিভির পর্দায় ভেসে ওঠে শিল্পীর মরমী কন্ঠে” কি গান শোনাবো ওগো বন্ধু, মানুষের নেই মানবতা” গানটি তখনই বিবেকের দরজায় ধাক্কা লাগে৷ আমরা সৃষ্টির সেরা জীব মানুষ, মহান রাব্বুল আলামিন আমাদের মানবিক গুণাবলী দিয়ে পৃথিবীতে পাঠিয়েছেন৷ কিন্তু এই মানবিক গুণাবলির মধ্যে যখন পশুত্ব ঢুকে পড়ে তখন মানুষের মানবিক গুণাবলী আর অবশিষ্ট থাকে না, মানুষ হয়ে যায় পশু৷ আর তাই একজন মানুষ ভিক্ষা করে জীবিকা নির্বাহ করা একজন ভিক্ষুকের ভিক্ষালব্ধ টাকা পয়সা কেড়ে নিতেও কুন্ঠা বোধ করেনা৷ তাহলে কি বলব আমাদের পৃথিবী সম্পূর্ণ বসবাসের অযোগ্য হয়ে গেছে? মানবিকতা মনুষত্ব একেবারেই কি হারিয়ে গেছে? এর উত্তর হল-কিছু কিছু মানুষের মনুষত্ব হারালেও এখনো অনেক মহানুভব মানুষ পৃথিবীতে আছেন বলেই চন্দ্র সূর্য উদিত হচ্ছে৷ বিশুদ্ধ সমিরন সুবাসিত ফুলের সৌরভে আমাদের সুরভিত করে চলেছে ৷ খলিফায়ে রাশেদীনের যুগে খলিফা হারুনুর রশিদ মানুষের সুখ দুঃখের খোঁজ নিতে রাতে রাতে তাদেরর গৃহাঙ্গিনায় পদার্পণ করে সবার সুখ দুঃখের খবর নিয়েছেন৷ এবং তাদের দুঃখ কষ্ট ঘোচাতে হৃদয়ের মানবিকতার দ্বার উন্মোচন করে দিয়েছেন৷ এ যুগেও এমন মানুষ পৃথিবীতে নেই তাই বা কেমন করে বলি! আমরা যারা কুষ্টিয়াবাসী আমরা কুষ্টিয়া জেলার বর্তমান সুযোগ্য পুলিশ সুপার জনাব এস এম তানভীর আরাফাত পিপিএম (বার) মহোদয়ের মানবিকতার কাহিনী সবাই জানি৷ তিনি টাকা পয়সার অভাবে লেখাপড়া করতে না পারা মেধাবী ছাত্রদের পড়াশোনার খরচের জন্য নিজে পাশে দাড়িয়ে সহযোগিতার হাত প্রসারিত করেছেন, ফলে সে মেধাবী ছাত্ররা বিদ্যাপীঠ তাদের পড়াশোনার জীবন শুরু করতে পেরেছে৷ অর্থাভাবে চিকিৎসা বঞ্চিত মানুষকেও তিনি সহযোগিতা দিয়ে তার চিকিৎসা সহযোগিতা করে তাকে আরো কিছুদিন পৃথিবীতে বেঁচে থাকার সুযোগ তৈরি করে দিয়েছেন৷ আর তিনি মানবিকতার এক নতুন দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন কুষ্টিয়া জেলার মিরপুর থানার গোবিন্দপুর গ্রামের অসহায় খেটে খাওয়া দরিদ্র একজন মানুষ রাজুর ক্ষেত্রে৷ রাজুর শারীরিক প্রতিবন্ধী মেয়ে আরোবি খাতুন(৬) শারীরিক প্রতিবন্ধকতার জন্য স্কুলে প্রথম শ্রেণীতে পড়তে যেতে অপারগ হয়ে পড়েছিল৷ বিষয়টি জানতে পেরে কুষ্টিয়া জেলার সদাশয় পুলিশ সুপার জনাব এস এম তানভীর আরাফাত পিপিএম (বার) আরবি খাতুনের হুইল চেয়ারে করে লেখাপড়া করতে যাওয়া সহ তার চলাচলের পথ যেন সুগম হয় সে উদ্দেশ্যে আরবি খাতুনকে একটি হুইল চেয়ার কিনে দিয়েছেন৷ হুইল চেয়ারটি পেয়ে আরবি খাতুন নতুন দিনের সূর্যোদয় দেখতে শুরু করে৷ তার মুখে জমে থাকা সব দুঃখ আর কষ্ট হাসিতে পরিণত হয়৷ আর এতে করে একদিকে যেমন আরবি খাতুনের মুখে খুশির ফল্গুধারা বয়ে চলে অন্যদিকে তার বাবা-মা ও যারপরনাই খুশি হয়ে পুলিশ সুপার মহোদয়কে কৃতজ্ঞ চিত্তে স্মরন করে পরম করূনাময় আল্লাহ পাকের দরবারে তার দির্ঘায়ু কামনা করেন ৷ আরবি খাতুন তার ভবিষ্যৎ জীবনের পথ চলার নতুন দিগন্তের দিশা পেয়ে অবশ্যই বলতে শিখেছে “মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য, একটু সহানুভূতি মানুষ মানবতার প্রতিক এস এম তানভীর আরাফাত পিপিএম (বার) পুলিশ সুপার কুষ্টিয়া মহোদয়ের মত মানুষের কাছ থেকেই পেতে পারে”৷

 

 

 

 

এই করোনা ক্রান্তিকালে পুলিশ সুপার এসএম তানভীর আরাফাতে পিপিএম (বার) এর নেতৃত্বে কুষ্টিয়া জেলা পুলিশ ছিল করোনার বিরুদ্ধে সম্মুখ যোদ্ধা করোনার ক্রান্তিকালে পুলিশ সুপার মহোদয়-এর নেতৃত্বে কুষ্টিয়া জেলার প্রতিটি থানায় মানুষের মধ্যে মাক্স হ্যান্ড স্যানিটাইজার ইত্যাদি সুরক্ষা সামগ্রী বিতরণ ছাড়াও পুলিশ সদস্যদের রেশন সামগ্রী এক জায়গায় করে পুলিশ মেসে খাবার রান্না করে তা অসহায় ছিন্নমূল মানুষদের মধ্যে বিতরণ করা হয়েছে৷

 

 

 

 

 

জনাব এস এম তানভীর আরাফাত, পিপিএম(বার), সুযোগ্য পুলিশ সুপার, কুষ্টিয়া মহোদয়ের নিজস্ব উদ্যোগে পুলিশ সদস্যদের সুরক্ষার পাশাপাশি ২৫০ শষ্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল, কুষ্টিয়াথর চিকিৎসকদের সুরক্ষার জন্য অদ্য ২২/০৪/২০২০ খ্রিঃ তারিখ ১০০(একশত) পিস ফেইস শিল্ড জনাব তাপস কুমার সরকার(জগঙ) কে প্রদান করা হয়। ইতোপূর্বে ২৫০ শষ্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতাল, কুষ্টিয়াকে ৫০০(পাঁচশত) পিস হ্যান্ড স্যানিটাইজার, ৩০০০(তিন হাজার) পিস মাস্ক, ১০০০(এক হাজার) পিস হ্যান্ড গøাভস এবং সিভিল সার্জন, কুষ্টিয়া মহোদয়কে ৪০০ টি পিপিই (চবৎংড়হধষ চৎড়ঃবপঃরাব ঊয়ঁরঢ়সবহঃ) প্রদান করা হয়। জনাব এস এম তানভীর আরাফাত পিপিএম (বার), সুযোগ্য পুলিশ সুপার, কুষ্টিয়া মহোদয়ের সার্বিক তত্ত¡াবধানে কুষ্টিয়া জেলার সকল থানাধীন এলাকায় জনাকীর্ণ ও ঘিঞ্জিপূর্ন এলাকার মাছ ও কাঁচা বাজার নিকটস্থ উম্মুক্তস্থানে স্থানান্তর করা হয় এবং বাজারে আগত ক্রেতা-বিক্রেতাদের ক্রয়-বিক্রয়কালীন সময় সামাজিক দুরুত্ব বজায় রাখার বিষয়টি নিশ্চিত করাসহ আগমন ও প্রস্থানের জন্য আলাদা পথের ব্যবস্থা করা হয়।মানবতার সেবায় জেলা পুলিশ, কুষ্টিয়া”

 

 

জনাব এস এম তানভীর আরাফাত পিপিএম (বার), সুযোগ্য পুলিশ সুপার, কুষ্টিয়া মহোদয়ের সার্বিক তত্ত¡াবধানে জেলা পুলিশ, কুষ্টিয়ার নিজেস্ব অর্থায়নে কুষ্টিয়ার সাতটি থানা এলাকায় করোনা ভাইরাসের (কোভিড-১৯) সংক্রমণ প্রতিরোধে অবরুদ্ধ গরিব, দিনমজুর, দুস্থ্য, অসহায়-দারিদ্র্য পরিবারের মাঝে থানা পুলিশ খাদ্য সামগ্রী(ত্রান) পৌছে দেওয়া হয়। এরই ধারাবাহিকতায় জনাব আতিকুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার, সদর সার্কেল, কুষ্টিয়ার নেতৃত্বে অফিসার ইনচার্জ, খোকসা থানা তার নিয়ন্ত্রনাধীন ১নং খোকসা ইউনিয়ন, ২নং ওসমানপুর ইউনিয়ন, ৩নং বেতবাড়ীয়া ইউনিয়ন, ৪ নং জানিপুর ইউনিয়ন, ৫নং শিমুলিয়া ইউনিয়ন, ৬নং শোমসপুর ইউনিয়ন, ৭নং গোপগ্রাম ইউনিয়ন, ৮নং জয়ন্তীহাজরা ইউনিয়ন এবং আমবাড়ীয়া ইউনিয়নের পাঁচ শতাধিক পরিবারের মধ্যে খাদ্য সামগ্রী(ত্রান) সরবরাহ করে।

 

 

 

কুষ্টিয়া জেলার দৌলতপুর থানাধীন ফিলিপনগর মন্ডলপাড়া গ্রামের জনৈক আব্দুল কুদ্দুস করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ঢাকায় মুগদা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু বরণ করেন এবং একই থানাধীন ইসলাম নগরের শুভ তারা বেগম করোনা ভাইরাস উপসর্গ নিয়ে ঢাকায় কুয়েত মৈত্রী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যু বরণ করেন। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ২৭/০৫/২০২০ খ্রিঃ তারিখ সকাল ১০.৩০ ঘটিকায় মৃত শুভ তারা বেগমের নমুনা সংগ্রহ পূর্বক করোনা পরীক্ষার জন্য পরীক্ষাগারে প্রেরন করেন। তাদের লাশ ২৭/০৫/২০২০ খ্রিঃ তারিখ নিজ নিজ গ্রামের বাড়ীতে আসলে প্রাকৃতিক দুর্যোগের মধ্যে সকল প্রতিকূলতা উপেক্ষা করে নিজেদের দায়িত্ববোধ থেকে জনাব এস এম তানভীর আরাফাত, পিপিএম(বার), সুযোগ্য পুলিশ সুপার, কুষ্টিয়া মহোদয়ের সার্বিক দিক নিদের্শনায় অফিসার ইনচার্জ, দৌলতপুর থানার নেতৃত্বে কুইক রেসপন্স টিম(ছজঞ)এর সহায়তায় ইসলামী শরিয়ত মোতাবেক সামাজিক দুরুত্ব বজায় রেখে লাশের জানাযা শেষে নিজ নিজ এলাকার কবরস্থানে দাফন করা হয়।

 

 

 

 

পুলিশ সুপার জনাব তানভীর আরাফাত পিপিএম বারের মানবিকতার এসমস্ত গল্প এত স্বল্প পরিসরে বলে শেষ করা যাবে না বলতে গেলে হয়তো কয়েক খন্ড সিরিজ গল্প তৈরি হয়ে যাবে তিনি তার কর্মের মাঝে কুষ্টিয়া জেলা বাসীর মনে চিরস্থায়ী জায়গা করে নিয়েছেন তারা মনে করে পুলিশ সুপার মহোদয় তাদের মাঝের থেকে এ ধরনের আরও সেবা দিয়ে যাবেন তার সমস্ত ভালো কাজের জন্য আমার অন্তরের অন্তস্থল থেকে তাকে আমি স্যালুট জানাই

 

 

 

সাফল্য পেরিয়ে খ্যাতির চূড়ায় চূড়ায় সবার প্রথমে হোক তাঁর অবস্থান৷

বহুদিন ধরে যত ফুল ফুটেছে, আর ভবিষ্যতেও যত ফুল ফুটবে ,

সকল ফুলের শুভেচ্ছা তাঁকে ৷

পৃথিবীপৃষ্ঠের প্রতিটি পদক্ষেপ সুন্দর আরো সুন্দর হোক, প্রিয়জনদের প্রতিটি হৃদয়ে চিরকাল তাঁর নামের আরতী জ্বলুক৷

 

লেখক: সাবেক পুলিশ কর্মকর্তা, লেখক ও কলামিস্ট।

 






এ জাতীয় আরো খবর ....




মাথাভাঙ্গা নদীর তীরে মানুষের ভীড়

Archives

MonTueWedThuFriSatSun
      1
9101112131415
16171819202122
23242526272829
30      
   1234
262728293031 
       
 123456
282930    
       
     12
10111213141516
31      
  12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  
       
891011121314
2930     
       
    123
45678910
11121314151617
18192021222324
       
  12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
27282930   
       
      1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031     
     12
3456789
10111213141516
17181920212223
242526272829 
       
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
x
x