বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০, ১১:২৩ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
শিরোনাম :
কুষ্টিয়ায় ইলিশ রক্ষায় পরিচালিত অভিযানে ১০ জেলে আটক, ভ্রাম্যমানে কারাদন্ড ঝিনাইদহে মাথা গোজার ঠাই পেলো ৩৭টি পরিবার মুজিবনগরে সাবালোক নাতিদের অত্যাচারে গৃহহীন দাদা মূসা করিম সেশনজট মুক্ত মেডিকেল শিক্ষাবর্ষের দাবিতে কুষ্টিয়ায় শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন কুষ্টিয়ায় পোল্ট্রি খামারীর খাম-খেয়ালী: বিদ্যুৎবাহী নিরাপত্তা বেষ্টনীর তারে জড়িয়ে নারী শ্রমিকের মৃত্যু গাংনী সীমান্তে ২ লাখ টাকার ফেন্সিডিল ও ট্যাবলেট উদ্ধার কুষ্টিয়ায় শ্বাসরোধে শিশু হত্যা, জড়িত সন্দেহে নিহতের ফুফু সুমাইয়া আটক চুুয়াডাঙ্গায় বেগুনের দাম বাড়ায় খুশি কৃষকরা আইন প্রয়োগ ও বাস্তবায়নে দক্ষতা অর্জন জরুরী- জাসদ সভাপতি ইনু কুষ্টিয়া হরিনারায়ণপুরের ভূমি অফিসের বাথরুম থেকে সানজিদা নামের এক শিশুর লাশ উদ্ধার

কুষ্টিয়ায় আখ চাষে আগ্রহ বাড়ছে চাষীদের

নিজস্ব প্রতিনিধি: / ১৭৯ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ২২ অক্টোবর ২০২০ ১১:২৩:৩৭
আখ চাষে আগ্রহ বাড়ছে চাষীদের




করোনাকালীন কাজ হারানো যুবক, বিদেশ ফেরত কর্মী বা ছাত্র যুবদের আত্ম-কর্মসংস্থান সৃষ্টির খাত হিসেবে কৃষিই হতে পারে সম্ভাবনাময় ক্ষেত্র। আখ চাষ করে তারই এক দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছে কুষ্টিয়া মিরপুর উপজেলার কলেজ ছাত্র রাকিব ও বিদেশ ফেরত যুবক বেল্লু মন্ডল। স্থানীয়দের মতে, বেকার অলস সময়কে কাজে লাগাতে পারলে পরিবার সমাজ ও রাষ্ট্রের অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি ছাড়াও রোধ হবে সামাজিক অবক্ষয়। কৃষি বিভাগ বলছেন, কৃষি খাতে নিজ উদ্যোগে আত্ম-কর্মসংস্থান সৃষ্টিতে তরুণ/যুবরা এগিয়ে আসলে তাদের জন্য সরকারী ভাবে নানামুখী সহায়তা প্রনোদনা দিচ্ছে সরকার।

 

 

 

কলেজ ছাত্র রকিব বলেন,‘ফেসবুক, টুইটার, ইউটিউবে অলস সময় ব্যয় করে কি লাভ ? বরং রুটিন মাফিক কিছু সময় মাঠে পরিশ্রম করলে কিছু না কিছু আসবেই। গত ডিসেম্বরে আমি লিজকৃত ৪বিঘা জমিতে গ্যান্ডারী (আখ) লাগাই। সার বীজ শ্রমিকসহ এ পর্যন্ত ৪লাখ লক্ষ টাকা খরজ হয়েছে। বিঘা প্রতি ১৫হাজার পিচ গ্যান্ডারী হয়েছে। ইতোমধ্যে বিভিন্ন এলাকার খুচরা বিক্রেতারা জমি থেকেই প্রতি পিচ গ্যান্ডারী ২৫ থেকে ৩০ দরে কিনে নিয়ে যাচ্ছে। সবমিলে ৬০হাজার পিচ গ্যান্ডারী বিক্রী থেকে আয় হবে ১৫ থেকে ১৮লক্ষ টাকা।

 

 

 

উপজেলার গোবিন্দগুনিয়া গ্রামের বিদেশ ফেরত বেল্লু মন্ডল বলেন, ২০১৫ সালে জমি বন্ধক রেখে সাড়ে ৩লাখ টাকা খরচ করে ওমান গিয়ে হারভাঙ্গা খাটুনির সাথে মানবেতর জীবন। চার বছর কাজ করেও খরচের টাকা তুলতে পারিনি। শেষ পর্যন্ত দেশে ফিরে এই লিজকৃত জমিতে শ্রম দিচ্ছি। আমি তো দেখছি, সোনার বাংলার সোনা ফলানো মাটিতে শ্রম দিলে সফলতা আসবেই। গ্যান্ডারি আখসহ সমন্বিত সব্জি চাষ করে বছর শেষে একটা মানুষের হালাল পথে ৬থেকে ৭লাখ টাকা আয় হয় তাহলে আর কি লাগে? তবে এক্ষেত্রে সরকারী ভাবে সহজ শর্তে ঋণসহ সহায়তা পেলে আরও অনেক বেকার কর্মহীন কর্মক্ষম মানুষ নিজের পায়ে দাঁড়াতে পারবে বিশ^াস তাঁর।

 

 

 

 

উপজেলার আমলা গ্রামের খুচরা আখ বিক্রেতা জামিরুল জানায়, আগে এই গ্যান্ডারী আখ যশোর, সাতক্ষীরা, নাটোর বা অন্যান্য জেলা থেকে বাসে ছাদে কিংবা ট্রাকে বা নছিমনে বহন করে আনতে অনেক ভোগান্তি ও ঝামেলা পোহাতে হতো, খরছও হতো বেশী। এখন এলাকাতেই আখ চাষ হওয়ায় সহজে কম খরচে সংগ্রহ করে জেলার বিভিন্ন স্থানে বিক্রয় করে বেশ ভালো লাভ হচ্ছে। প্রতি একটি গ্যান্ডারী সাইজ অনুযায়ী জমি থেকে ২৫ বা ৩০টাকা দলে কিনে সেগুলি খুচরা বাজারে ৫৫ থেকে ৬০টাকা করে বিক্রী করছি। ২০/৩০ পিচ গ্যান্ডারী বহন করে বাজারে নিয়ে যেতে পারলেই বিক্রী হয়ে যায়।

 

 

 

৩নং চিথলিয়া ইউপি চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন পিস্তল বলেন, গ্যান্ডারী চাষী যুববকদ্বয়ের কাজটি অন্যদের কাছেও অনুসরনযোগ্য হতে পারে। ছাত্র যুবকরা বেকার-অলস না থেকে বা মাদক ছেড়ে এভাবে কৃষি কাজে সফলতার মাধ্যমে স্বাবলম্বি হতে চাইলে তাদের প্রত্যক্ষ বা পরোক্ষ সব ধরণের সহায়তা করা হবে বলেও জানান তিনি।

 

 

 

মিরপুর উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ রমেশ চন্দ্র ঘোষ বলেন, কর্মক্ষম ছাত্র-যুবক বা করোনাকালীন সংকটে কর্মহীন হয়ে পড়া বা বিদেশ ফেরত যুবকরা হতাশ না হয়ে কৃষি খাতের কাজকে পেশা হিসেবে বেছে নিতে পারেন। তাতে খুব অল্প সময়ের মধ্যে তারা নিজেরাই স্বাবলম্বি হয়ে নিজের পায়ে দাঁড়াতে সক্ষম হবেন। বর্তমান কৃষি খাতে এমন বেশ কিছু অধিক লাভজনক ফসল আছে যা চাষ করতে পারলে ওই কৃষকে আয়ের সাথে কোন সরকারী চাকুরীরত ব্যক্তির চেয়ের সচ্ছল জীবন-যাপন সম্ভব। এক্ষেত্রে যে কেউ উদ্যোগী হয়ে মাঠে নামলে সরকার ও কৃষি সম্প্রসারন বিভাগ সব রকম সহায়তা নিয়ে সর্বদা তাদের পাশে আছে।

 






আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর ....




মাথাভাঙ্গা নদীর তীরে মানুষের ভীড়

Archives

MonTueWedThuFriSatSun
   1234
19202122232425
262728293031 
       
 123456
282930    
       
     12
10111213141516
31      
  12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
2728293031  
       
891011121314
2930     
       
    123
45678910
11121314151617
18192021222324
       
  12345
6789101112
13141516171819
20212223242526
27282930   
       
      1
2345678
9101112131415
16171819202122
23242526272829
3031     
     12
3456789
10111213141516
17181920212223
242526272829 
       
এক ক্লিকে বিভাগের খবর
x
x